ঢাকা,  মঙ্গলবার,  মে ২৪, ২০১৭ | ৯ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
For problem seeing Bangla click here
সদ্য খবর
English

গ্যাসের দাম নিয়ে জ্বালানি মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসুচিতে পুলিশের বাধা

ইবি প্রতিবেদক

গ্যাসের নতুন দাম প্রত্যাহারের দাবিতে বাম দলগুলোর জ্বালানি মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচিতে কাদানো গ্যাস, জলকামানের পানি ও ফাঁকা গুলি ছুড়েছে পুলিশ। পাল্টাপাল্টি ধাওয়ায় বেশ কয়েকজন আন্দোলনকারী আহত হয়েছেন বলে জানা যায়। বুধবার দুপুরের দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের আশেপাশের এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত বাতিলসহ সাত দফা দাবিতে গত ২৮ ফেব্র“য়ারি হরতালের পর জ্বালানি মন্ত্রণালয় ঘেরাওয়ের এই কর্মসূচি দেয়া হয়। সে অনুযায়ী বুধবার বেলা ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ শুরু করা হয়। এতে বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টি (সিপিবি), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), গণসংহতি আন্দোলন, তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির নেতা-কর্মীরা অংশ নেয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ, বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামানসহ অন্যরা।

gas price protest-energybangla 5
সমাবেশ শেষে দুপুর ১২টার দিকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে তারা। মিছিলটি হাইকোর্ট মোড় ঘুরে পল্টন মোড় হয়ে আবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আসে। এরপর প্রেসক্লাব থেকে মিছিলটি প্রেসক্লাবের পাশের রাস্তা দিয়ে সচিবালয়ের দিকে যাওয়ার লিংকরোড ধরে এগোতে শুরু করে। এ সময় পুলিশ ব্যারিকেড দিয়ে রাস্তা আটকে দেয়। আন্দোলনকারীরা ব্যারিকেড ভেঙে এগুতে চাইলে পুলিশের সঙ্গে তাঁদের ধস্তাধস্তি হয়। একপর্যায়ে আন্দোলনকারীদের লক্ষ্য করে জলকামান থেকে পানি ছোড়ে পুলিশ। এরপর কাদানো গ্যাস ছোড়ে। আন্দোলনকারীরারও পুলিশকে উদ্দেশ্য করে ইট-পাটকেল ছোড়েন। একপর্যায়ে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া শুরু হয়। এ সময় পুলিশের লাঠিচার্জে কয়েকজন নেতা-কর্মী আহত হয়। এরপর বেশ কয়েকটি ফাঁকা গুলির শব্দ পাওয়া যায়। এ সময় নেতা-কর্মীদের মধ্যে অনেকেই প্রেসক্লাবের ভেতরে অবস্থান নেন।

gas price protest -energybangla 2
এ সময় প্রেসক্লাব এলাকায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে পরিস্থিতি শান্ত হলে বেলা পৌনে ১টার দিকে আবার যান চলাচল শুরু হয়।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে জানা যায়, এ ঘটনায় কমপক্ষে ১১ জনকে জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। গণসংহতি আন্দোলন জানায়, এতে তাদের কেন্দ্রীয় নেতা আবু বকর রিপন গুরুতর আহত হন। কেন্দ্রীয় নেতা বেলায়েত সিকদার, ছাত্র ফেডারেশন ঢাকা মহানগর শাখার নেতা আল মোস্তাকিম, নাইম খান, নুসরাত হক, মো. হাসিব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আশরাফুল হক ইশতিয়াক, নারায়নগঞ্জ জেলার জাহিদুল আলম, রিয়া আক্তার, প্রতিবেশ আন্দোলনের রায়হান জামানসহ ৩০ জন আহত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

gas price protest -energybangla 3
পরে প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান নেন নেতা-কর্মীরা। এ সময় সিপিবির কেন্দ্রীয় নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স তাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসুচিতে পুলিশি হামলার প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতিবার প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশের ঘোষণা দেন।

এখানে মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না

*

You can use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>