ঢাকা,  বুধবার,  জানুয়ারি ২৩, ২০১৯ | ১০ মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
For problem seeing Bangla click here
সদ্য খবর
English

বরগুনায় হচ্ছে ৩৫০ মেগাওয়াট কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র

মো. আবু সাইদ খোকন, বরগুনা

বগুড়ার তালতলী উপজেলার নিশান বাড়িয়া ইউনিয়নে হচ্ছে ৩৫০ মেগাওয়াটের কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুত কেন্দ্র। এর জমি উন্নয়নের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে।

২০২২ সালের শুরু থেকেই এই বিদ্যুৎকেন্দ্র উৎপাদনে যাবে বলে জানিয়েছে প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

চলতি বছরের ১২ই এপ্রিল বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ও সরকারের সঙ্গে বিদ্যুৎ ক্রয় চুক্তি হয়। এটা যৌথভাবে বাস্তবায়ন করছে চীনের ‘পাওয়ার চায়না রিসোর্স লিমিটেড’ ও বাংলাদেশের আইসোটেক গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান ‘আইসোটেক ইলেট্রিফিকেশন কোম্পানি লিমিটেড’।

এই প্রকল্পে খরচ ধরা হয়েছে সাড়ে চার হাজার কোটি টাকা। মোট ৩০০ একর জমির উপর এই কেন্দ্র হচ্ছে। এখান থেকে ২৫ বছর বিদ্যুৎ কেনার চুক্তি করা হয়েছে। প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম ধরা হয়েছে ৬ টাকা ৭৭ পয়সা। তবে কয়লার দামের সঙ্গে এই দাম সমন্বয় হবে।

আইসোটেক গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মঈনুল আলম বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণ এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ অর্জনের জন্য বিদ্যুৎ অন্যতম প্রধান উপাদান। পরিবেশের যাতে ক্ষতি না হয় সেদিকে অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে। বৈদেশিক অর্থায়নে নির্মিত হওয়ায় নিয়মনীতির ব্যত্যয় ঘটানোর সুযোগ নেই। পাওয়ার চায়না রিসোর্স লিমিটেড কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদনে বিশ্বখ্যাত প্রতিষ্ঠান। তারা অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান, ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনাম, কম্বোডিয়াসহ বিশ্বের বেশ কিছু দেশে দক্ষতার সঙ্গে কয়লা দিয়ে ৩০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করছে।

আইসোটেক গ্রুপের মিডিয়া উপদেষ্টা ফিরোজ চৌধুরী বলেন, ওই এলাকায় শুধু বিদ্যুৎ কেন্দ্র নয়, সেখানে কর্মরতদের ও স্থানীয়দের জন্য ৫০ শয্যার হাসপাতাল হবে। স্কুল, কলেজ, মসজিদ, মাদ্রাসা ও মন্দির করা হবে। এখানে সাড়ে তিন হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে। বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র সংলগ্ন পানি উন্নয়ন বোর্ডের জমিতে যে ১২০ ভূমিহীন পরিবার আছে তাদের পুর্নবাসনের জন্য জমি কেনা হয়েছে। তাদের জন্য স্থায়ী ঘর করে দেয়া হবে।

এখানে মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না

*

You can use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>