ঢাকা,  শুক্রবার,  নভেম্বর ২৪, ২০১৭ | ১০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
For problem seeing Bangla click here
সদ্য খবর
English

বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হোন: প্রধানমন্ত্রী

বিডিনিউজ

বিদ্যুৎ উৎপাদনে সরকারের ভর্তুকি দেওয়ার কথা তুলে ধরে বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হতে নাগরিকদের অনুরোধ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার গণভবনে এক অনুষ্ঠানে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে শেখ হাসিনা বলেছেন,“আপনারা বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হবেন। অহেতুক বিদ্যুৎ চালু রাখবেন না।

“আপনাদের প্রতি বিশেষ অনুরোধ; নিজ হাতে সুইচ বন্ধ করুন। আমি যখন ঘর থেকে বের হই, আমি নিজ হাতে সুইচ বন্ধ করি।”

মানুষের সুবিধার জন্য বিদ্যুৎ উৎপাদনে ভর্তুকি দেওয়া হচ্ছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, উৎপাদন খরচের চেয়ে প্রায় ২২ শতাংশ কম দামে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হচ্ছে।

বিদ্যুতের ব্যবহারের সাশ্রয়ী হতে প্রধানমন্ত্রী প্রিপেইড মিটার ব্যবহার, ব্যবহার না করলে সুইচ বন্ধ রাখা এবং যতটুকু দরকার ততটুকু ব্যবহারের পরামর্শ দেন।

দেশবাসীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, “বিদ্যুতের অপচয় যেনো না হয়, সেজন্য আমি বিশেষ অনুরোধ জানাচ্ছি। এই সম্পদ আমাদের সম্পদ, সরকারি সম্পদ মানে জনগণের সম্পদ।”

সকালে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে সদ্যনির্মিত দুটি বিদ্যুৎকেন্দ্র, ভারতের ত্রিপুরা থেকে রেডিয়াল মোডে অতিরিক্ত ৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ কার্যক্রম এবং দশটি উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন উদ্বোধন করেন।

দুই হাজার ৫৯০ কোটি টাকা ব্যয়ে আশুগঞ্জ সাড়ে ৪০০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল পাওয়ার প্লান্টে জ্বালানি হিসাবে প্রাকৃতিক গ্যাস ব্যবহার করা হবে। চলতি বছরের ১১ জুন থেকে এই কেন্দ্র থেকে বাণিজ্যিকভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হচ্ছে।

কেরাণীগঞ্জের ১০৮ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্রে জ্বালানি হিসাবে হেভি ফুয়েল অয়েল (এইচএফও) ব্যবহার করা হবে।

বাগেরহাটের মোল্লাহাট ও ফকিরহাট উপজেলা, দিনাজপুরের হাকিমপুর, ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর, সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ ও সিলেট সদর উপজেলা, কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা, নরসিংদীর ভৈরব, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড এবং নরসিংদী সদর উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন নিশ্চিত করা হয়েছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের সাথে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গত বছরের ২৩ মার্চ শেখ হাসিনা বাংলাদেশ-ভারত দ্বিতীয় গ্রিড আন্তঃসংযোগ এবং ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি উদ্বোধন করেন।

রোববার ভারতের ত্রিপুরা থেকে অতিরিক্ত ৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা।

বিদ্যুৎকে উন্নয়নের পূর্বশর্ত হিসেবে উল্লেখ করে অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা বলেন, “যে কোনো উন্নয়নের কথা বলতে গেলে.. বিদ্যুৎটা অত্যন্ত জরুরি।”

জ্বালানির নবায়নযোগ্য উৎস কাজে লাগানোর কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা সেচ কাজে সৌর বিদ্যুৎ ব্যবহারের তাগিদ দেন।

এর আগে মার্চে ১৬টি উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়ন নিশ্চিত করা হয়। সরকারের লক্ষ্য ২০১৮ সালের মধ্যে দেশের ৪৬০ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন নিশ্চিত করা।

অনুষ্ঠানের শুরুতে বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব আহমদ কায়কাউস দেশের বিদ্যুতের সর্বশেষ পরিস্থিতি তুলে ধরেন। প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা তৌফিক-ই-ইলাহী এবং বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপুও এতে বক্তব্য রাখেন।

এখানে মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না

*

You can use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>