ঢাকা,  শুক্রবার,  নভেম্বর ২৪, ২০১৭ | ১০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
For problem seeing Bangla click here
সদ্য খবর
English

শেভরণ যাচ্ছে না: উল্টো ৪০ কোটি ডলার বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত

ইবি প্রতিবেদক

শেভরণ বাংলাদেশ থেকে তাদের ব্যবসায় গুটিয়ে চলে যাচ্ছে না। উল্টো গ্যাস কূপ উন্নয়নে  ৪০ কোটি ডলার বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ একথা জানিয়েছেন।
আজ বিকালে বিদ্যুৎভবনে এক চুক্তি সই অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।
নসরুল হামিদ বলেন, শেভরণ বাংলাদেশ থেকে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে। এখন তারা আরও বিনিয়োগ করবে। শুধু শেভরণ নয় বিদ্যুৎ জ্বালানি খাতে এখন প্রচুর বিদেশী প্রতিষ্ঠান বিনিয়োগ করচে চাইছে।

এবিষয়ে যোগাযোগ করা হলে শেভরণ এর ব্যবস্থাপক শেখ জাহিদুর রহমান বলেন, শেভরন নিয়মিতভাবে জাতীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক স্টেকহোল্ডারের সঙ্গে বিশ্বব্যাপী যোগাযোগ রেখে চলে। আমাদের দীর্ঘ-স্থায়ী নীতিমালা অনুযায়ী, আমরা সরকারী কর্মকর্তাদের সাথে এ নিয়ে নির্দিষ্ট কোন বৈঠক করিনি।

শেভরণ তাদের বাংলাদেশের সম্পদ চীনের এক কোম্পানির কাছে বিক্রি করে দেবে বলে প্রাথমিক চুক্তি করেছে।
শেভরণ বর্তমানে বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি বিদেশী বিনিয়োগ করা কোম্পানি। দেশের সবচেয়ে বড় গ্যাস ক্ষেত্র পরিচালনা করে তারা।
বিক্রির বাণিজ্যিক আলোচনা চলছে। সুবিধামতো ও আকর্ষনীয় দর পেলে শেভরণের স্বার্থ বিক্রি করা হবে বলে আগে শেভরণ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল।
বাংলাদেশে থাকা সম্পত্তি বিক্রির জন্য আন্তর্জাতিক পরামর্শক নিয়োগ দিয়ে ছিল শেভরন। একাধিক দেশি ও বিদেশী প্রতিষ্ঠান তাদের সম্পদ কেনার আগ্রহ দেখিয়ে চিল।
আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দরপতনে বিশ্বব্যাপী লোকসানে পড়ায় শেভরণ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বলে জানিয়েছিল।  লোকসান কাটিয়ে উঠতে বাংলাদেশসহ এশিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে সম্পদ বিক্রির এই উদ্যোগ তাদের।
শেভরণের বাংলাদেশে প্রায় ২০০ কোটি ডলার বা প্রায় ১৬ হাজার কোটি টাকা সমমূল্যের সম্পদ আছে।
বাংলাদেশে বর্তমানে মোট গ্যাসের অর্ধেকের বেশি শেভরণ উত্তোলন ও সরবরাহ করে। উৎপাদন অংশীদারিত্ব চুক্তি (পিএসসি) করে জালালাবাদ, মৌলভীবাজার ও বিবিয়ানা তিনটি গ্যাসক্ষেত্রে পরিচালনা করছে।

এখানে মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না

*

You can use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>