ঢাকা,  রবিবার,  মে ২১, ২০১৮ | ৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
For problem seeing Bangla click here
সদ্য খবর
English

২০ হাজার বিদ্যালয়ে নেই বিদ্যুৎ

লুৎফর রহমান কাকন

দেশের বিশ হাজারের বেশি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎ নেই। এজন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে মাল্টিমিডিয়া শ্রেণিকক্ষ স্থাপন করা যাচ্ছে না।
প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. আবু হেনা মোস্তফা কামাল ২০ হাজার ৯৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে সম্প্রতি বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (বিআরইবি) চেয়ারম্যানকে চিঠি দিয়েছেন। এরই প্রেক্ষিতে বিআরইবি উদ্যোগ নিয়েছে বিদ্যালয়গুলোতে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার।
সরকারের অগ্রাধিকার খাত হওয়া সত্ত্বেও এসব বিদ্যালয়ে ডিজিটাল পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করানো যাচ্ছে না বলে জানানো হয়েছে।
চিঠিতে বলা হয়েছে, প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে সরকার বদ্ধপরিকর। প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে দেশের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম স্থাপনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পাঠদানের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। স্কুলে ল্যাপটপ ও মাল্টিমিডিয়া সহযোগে আনন্দের সঙ্গে পাঠদানের বিষয়টি বাস্তবায়নে বিদ্যুৎ সংযোগের প্রয়োজনীয়তা।
বিআরইবি সূত্র জানায়, আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে সংস্থাটি তাদের বিভিন্ন সমিতির মাধ্যমে ৭ হাজার ৬৯০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে।
সূত্র জানায়, গত বছরের ৮ই মার্চ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) সুলতান মাহমুদ ১১ হাজার ৯৫৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার জন্য বিআরইবিকে চিঠি দেয়। সেই চিঠিতেও একই বিষয় তুলে ধরা হয়। বলা হয়, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) মানুষের জীবনমানকে উন্নত করে থাকে; কার্যসম্পাদনকে করে সহজ ও আনন্দঘন। রূপকল্প ২০২১ ও এসডিজি বাস্তবায়নে দক্ষ জনগোষ্ঠী অপরিহার্য। শিক্ষার সার্বিক মানোন্নয়নে গুণগত প্রাথমিক শিক্ষা সকলের ও সময়ের দাবি। শ্রেণিকক্ষে আইসিটির ব্যবহার শিখন ও শেখানোর কার্যক্রমকে আরও গতিশীল, সহজ, আনন্দময় ও অধিক কার্যকর করে তোলে। সরকারের এ উদ্যোগ বাস্তবায়নে দেশের প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা জরুরি। যেসব বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ নেই, বিআরইবি যেন সেসব প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের ব্যবস্থা করে।

বিদ্যালয়গুলোতে সংযোগ দেয়ার জন্য দুই হাজার ৬১০ কিলোমিটার বিদ্যুৎ বিতরণ লাইন করা হবে। এর মধ্যে মার্চে ৮২ কিলোমিটার বিতরণ লাইনের মাধ্যমে ৫৪৩টি বিদ্যালয়ে; জুনের মধ্যে দুই হাজার ১৮৮টি এবং সেপ্টেম্বরের মধ্যে চার হাজার ৯৫৯টি বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এজন্য মোট দুই হাজার ৭৫ কিলোমিটার বিদ্যুৎ বিতরণ লাইন করা হবে।

এ বিষয়ে বিআরইবির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব) মঈনউদ্দিন  বলেন, ইতোমধ্যে এগারো হাজার ৭১৪টি বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে। বাকী সাত হাজার ৬৯০টি বিদ্যালয়ে চলতি বছরের মধ্যেই বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হবে। যেসব বিদ্যালয় বিআরইবির বিতরণ এলাকার আওতায় নয়, সেখানে অন্য বিতরণ সংস্থাগুলো বিদ্যুৎ সংযোগ দেবে।

তিনি জানান, বিদ্যুৎ বিতরণ লাইন নির্মাণ করা সম্ভব নয়, এমন অফ-গ্রিড এলাকায় স্রেডার মাধ্যমে সোলার বিদ্যুতের ব্যবস্থা করা যেতে পারে।

এখানে মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না

*

You can use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>